সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ০২:৩১ পূর্বাহ্ন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষা’র্থীদের ডোপ টেস্ট করার নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃ’পক্ষ। মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের সি’ন্ডিকেট সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয় বলে জানিয়েছেন প্রো-ভিসি (শিক্ষা) এএসএম মাকসুদ কামাল।

এ বিষয়ে নীতিমালা নির্ধারণ করতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সদস্য ও ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক টিটু মিয়াকে আহ্বায়ক করে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের সি’ন্ডিকেট নীতিগতভাবে সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এখন এটা কি প্রক্রিয়া করা হবে, এজন্য কি ধরনের সুযোগ-সুবিধা দরকার, এটা কি সরকারের তরফ থেকে করা হবে, নাকি বিশ্ববিদ্যালয় করবে, অর্থাৎ কিভাবে এটা বাস্তবায়ন করা হবে, সেটা নিয়ে কমিটি নীতিমালা তৈরি করবে।’

অধ্যাপক টিটু মিয়া বলেন, ‘ডোপ টেস্টের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের তো এখন সক্ষমতা নেই। এটার জন্য ইকু’ইপমেন্টস লাগবে, ম্যানপাওয়ার লাগবে। এটা কি বিশ্ববিদ্যালয়ে করা হবে, নাকি অন্য কোনো ইন’স্টিটিউটে করা হবে, কিভাবে বাস্তবায়ন করা যায় সেটা নিয়ে আমরা একটি কমিটি কাজ করছি।’

বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগ ও প্রতি বছর নতুন শিক্ষার্থী ভর্তির ক্ষেত্রে এই ডোপ টেস্ট করানো হবে জানান অধ্যাপক টিটু মিয়া।

তিনি বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে অ্যাডমিশনের শুরুতে এই এই ডোপ করানো হবে। পর্যায়ক্রমে প্রতি ইয়ারে স্টু’ডেন্টদের একবার ডোপ টেস্ট করানো যেতে পারে। সক্ষ’মতা অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয় সেই সিদ্ধান্ত নেবে।’

মাদকাসক্তদের চিহ্নিত করতে সব পর্যায়ে ডোপ টেস্ট কার্যক্রম চালুর তাগিদ দিয়েছে স্ব’রাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি।

গত রোববার জাতীয় সংসদে কমিটির এক বৈঠকে সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বছরে একবার ডোপ টেস্টের পাশাপাশি কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়েও ডোপ টেস্টের তাগিদ দেয়া হয়।

আরও পড়ুন