রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০৯:২৮ অপরাহ্ন

বকশিশের পুরো টাকা না দেয়ায় বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে রোগীর নাক থেকে অক্সিজেনের নল খুলে দিয়েছে এক ওয়ার্ড বয়। এরপরই প্রাণ গেছে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ওই রোগীর। মঙ্গলবার রাতে হাসপাতালের সার্জারি ওয়ার্ডে এই ঘটনা ঘটেছে।

পুলিশ ও নিহতের স্বজনরা জানান, গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার বিশু চন্দ্র কর্মকারের ছেলে বিকাশ চন্দ্র কর্মকার মোটরসাইকেলের ধাক্কায় গুরুতর আহত হলে তাকে মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে বগুড়ার শজিমেক হাসপাতালে আনা হয়। জরুরি বিভাগ থেকে মাথায় ব্যান্ডেজ এবং মুখে অক্সিজেনের নল দিয়ে বিকাশকে ট্রলিতে করে নেয়া হয় হাসপাতালের তৃতীয় তলায় সার্জারি বিভাগে।

সেখানে মেঝেতে বিকাশকে নামিয়ে দেয়ার পর ট্রলি বহনকারী ওয়ার্ডবয় দুলু বিকাশের বাবার কাছে ২শ’ টাকা বকশিশ চান। আর্থিক সঙ্কটের কারণে বিকাশের বাবা তাকে ১৫০ টাকা দিলেও দুলু বাকি ৫০ টাকার জন্য চাপাচাপি করতে থাকে। এক পর্যায়ে বাকি টাকা না পেয়ে ওয়ার্ডের মেঝেতে রাখা বিকাশের নাক থেকে অক্সিজেনের নল খুলে দেয় দুলু।

স্বজনদের অভিযোগ, নল খুলে নেয়ার কয়েক মিনিটের মধ্যেই মুখে ফেনা উঠে প্রাণ যায় বিকাশের।

হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডাক্তার আবদুল ওয়াদুদ জানান, দুলু হাসপাতালের নিয়মিত কর্মচারী নয়। দৈনিক মজুরির ভিত্তিতে কিছু লোক নেয়া হয় মাঝে মাঝে। দুলু সেভাবেই কাজ করে থাকে হাসপাতালে। ঘটনার পর থেকে তার কোনো খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। তবে ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে বলে জানান ডাক্তার ওয়াদুদ।

সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সেলিম রেজা জানান, তারা ঘটনা শুনেছেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শনও করেছে। তবে নিহত বিকাশের পরিবার কোনো অভিযোগ না করায় এখনও কোনো আইনি ব্যবস্থা নেয়া যায়নি।

আরও পড়ুন